হ্যালো

– হ্যালো!
,
– কেমন আছো?
,
– কে বলছেন?
,
– আমি বলছি।
,
– আমি টা কে ?
,
– আমি, তুমি আমাকে চিনতে পারছোনা ?
,
– নাম না বললে কিভাবে চিনবো ?
,
– তুমি, তুমি আমার কন্ঠটাও ভুলে গেছ ? এত
কথা বলেছি আমরা । আমি বিশ্বাস করিনা
তুমি আমাকে চিনতে পারোনি । আমার উপর
ক্ষোভ থেকেই তুমি এমন করেছো ।
,
– কথা বললেই কি কন্ঠ চেনা যায় ? পাশে
থাকলেই কি মানুষ চেনা যায়?ভালবাসি
বললেই কি ভালবাসা যায় ? আর
ক্ষোভ,কিসের ক্ষোভ ?
,
-এতদিন পরে কথা হচ্ছে, তুমি আজও এমন
কঠিন করে কথা বলবে? এখনো আমায় ক্ষমা
করতে পারোনি না ?
,
-সহজ করে কথা বললে কি হবে ? আর তুমি তো
কোন পাপ করোনি, ক্ষমাটা আসছে কোথা
থেকে ?
,
– পাপ ! আমি কত বড় অপরাধ করেছি সে তো
আমি জানি । যার জ্বালায় এখন জ্বলে পুড়ে
মরছি । কেমন আছো অর্ক ?
,
-যেমন থাকার কথা ছিল ।
,
– এখনো যে জেগে আছো ! ঘুমাওনি কেন?
,
– ঘুম !!! ঘুম যার কাছ থেকে কিনতাম সে তো
মারা গেছে কয়েকমাস হল । তাই আর ঘুমানো
হয়না ।
,
-হ্যা ঠিকই বলেছো, আমি তো মারাই গেছি ।
কি করছিলে এত রাতে?
,
– বেলকনিতে বসে সিগারেট খাচ্ছিলাম।
,
– তুমি আবার সিগারেট ধরেছো ? সিগারেট
ছাড়ার জন্য যে আমার হাতে হাত রেখে কথা
দিয়েছিলে সে কথা ভুলে গিয়েছো ?
,
– সবাই কি সব কথা রেখেছে ? কেউ একজন
কথা দিয়েছিল সিগারেট ছাড়লে তিনবেলা
নিয়ম করে চুমু খাবে । কথারা কথা রাখেনি
তবে আমি কেন কথা রাখবো?
,
– আমি কেমন আছি সেটা জিজ্ঞেস করলে না ?
,
– নিশ্চই ভাল আছো । ভাল থাকার জন্যই তো
আমার থেকে দূরে সরে গিয়েছ।
,
-হ্যাঁ,ভাল আছি, অনেক বেশিই ভাল আছি আমি
। এত সুখে আছি যা কল্পনাও করতে পারবেনা
তুমি । সারা শরীরে আজ ভালবাসার চিহ্ন।
,
– ভালবেসে বিয়ে করেছ ভাল থাকাটাই
স্বাভাবিক । আমি তো কখনোই ভালবাসতে
পারিনি, সুখ দিতে পারিনি ।
,
– তুমি আমাকে জীবনেও বুঝলেনা । আমি
কিসের জন্য তোমার কাছ থেকে দূরে সরে
গিয়েছি সে শুধুই আমি জানি ।
,
-জানি কেন আমায় দূরে ঠেলেছিলে, বুঝি,
অতটুকু বোঝার ক্ষমতা আমার আছে । যাকে
পাগলের মত ভালবেসেছি তাকে বুঝবো না।
,
– আজ কত তারিখ মনে আছে তোমার?
,
– দিন তারিখ মনে রেখে কি হবে।
,
– আজ সেই দিন তিন বছর আগের যেই
দিনটাতে তুমি আমাকে ভালবাসি কথাটি
বলেছিলে । তুমি সেই দিনটিও ভুলে গেছ?
,
– মানুষই মানুষকে ভুলে যায়, নিজেই নিজেকে
ভুলে যাই আবার দিন মনে রাখবো কি করে ।
,
– তুমি মিথ্যে বলছো, তুমি কিছুই ভুলে যাওনি
। আমি তোমাকে চিনি অর্ক অনেক ভালভাবেই
চিনি । ভালবেসেছিলাম, এখনো ভালবাসি ।
শুধু পরিস্থিতি দূরে যেতে বাধ্য করেছে ।
তুমি শুধুশুধু আমায় ভুল বুঝেছো । আমি জানি
আমি অপরাধ করেছি কিন্তু আমার কিছুই করার
ছিলনা । আমার বিয়ে করাটা জরুরি ছিল আর
তুমি অই মুহুর্তে আমায় বিয়ে করতে পারতে
না । জানি তুমি আমায় ঘৃনা করো। কিন্তু মনে
রেখ আমি তোমায় আজও ভালবাসি আগের মতই
শুধু মাঝে একটা দেয়াল আছে এই আরকি!
,
– হাহাহাহাহা। ভালবাসা!!!!! আমার কারো
ভালবাসার দরকার নেই।আমি এখন সিগারেট
ছাড়া আর কাউকেই ভালবাসিনা।আমি আর
সিগারেট দুজনের সংসার খুব ভালই চলছে ।
এর মাঝে আপনি আর জ্বালাতন না করলেই
খুশি হব অর্না ম্যা’ম! smile emoticon

Leave a Comment

Please wait...

Subscribe to Our Newsletter

Want to be notified when our article is published? Enter your email address and name below to be the first to know.